Page View: 2,945,941 | Online: 7
child.oldagecare@gmail.com +8801622 220222 +8801633 330333

শত সংকটে পথচলা প্রতিষ্ঠানটির ২০ অক্টোবর ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী


Posted: 14 Oct 2021 | Published: Oct 2021

শত সংকটে পথচলা প্রতিষ্ঠানটির ২০ অক্টোবর ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
হযরত মোহাম্মদ (স:) বলেছেন, “আল্লাহ ততোক্ষণ বান্দাহর সাহায্য করেন, যতোক্ষণ সে তার ভাইকে সহযোগীতা করে।”-সহীহ মুসলিম। মাদার তেরেসা বলেছিলেন,“যদি তুমি একশো মানুষকে সাহায্য করতে সক্ষম না হও, তাহলে অন্তত একজনকে সাহায্য করো।” ঠিক এমন চিন্তা থেকেই একজন মানুষকে আশ্রয়ের ব্যবস্থা করতে গিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় ‘চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড এইজ কেয়ার’। ২০ অক্টোবর দেশের বৃহত্তম এই আশ্রমের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী।



দীর্ঘ সাত বছরে অনেক চড়াই-উৎরাই ফেরিয়ে এটি এখন অসহায়দের জন্য দেশের সবচেয়ে বৃহৎ প্রতিষ্ঠান। নিম্নে গত সাত বছরের কিছু সফলতা তুলে ধরা হলো:
আমাদের সফলতা:
০১। সাত শতাধিক বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের আশ্রয় প্রদান: দীর্ঘ সাত বছর যাবত অসুস্থ ও অজ্ঞাতাবস্থায় কুঁড়িয়ে পাওয়া বৃদ্ধ বাবা-মায়ের সম্পূর্ণ বিনা খরচে চিকিৎসা, খাদ্য, বস্ত্র এবং বাসস্থানের ব্যবস্থা করেছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার।
০২। তিন শতাধিক অসহায় শিশুর আশ্রয়: রাস্তা থেকে কুড়িয়ে পাওয়া অসহায়, প্রতিবন্ধী ও অজ্ঞাত ৩ শতাধিক শিশুদের চিকিৎসা, খাদ্য , বস্ত্র নিরাপত্তাসহ শিক্ষার ব্যবস্থা করেছে এই চাইল্ড এন্ড ওলই এইজ কেয়ার প্রতিষ্ঠানটি।
০৩। শতাধিক বৃদ্ধ-বৃদ্ধার পরিবার খুঁজে পাওয়া: দীর্ঘ সাত বছর যাবত পরিবার থেকে হারিয়ে যাওয়া শতাধিক বৃদ্ধ বাবা-মাকে পরিবার খুঁজে পেতে সাহায্য করেছে এই ব্যক্তিমালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানটি। এই দীর্ঘ পথচলার ফলে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার এখন হারিয়ে যাওয়া বৃদ্ধ মানুষদের খুজে পাওয়ার এক নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠানে রূপ নিয়েছে।
০৪। হারিয়ে যাওয়া ২৮০টি শিশুকে পরিবারে ফেরত পাঠানো: প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই রাস্তায় পড়ে থাকা অজ্ঞাত শিশু এবং বৃদ্ধদের সহায়তা করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় ২৮০ জন অজ্ঞাত শিশুকে রাস্তা থেকে কুঁড়িয়ে এনে তাদের স্ব স্ব পরিবারে পৌঁছে দিয়ে বাবা-মার মুখে হাসি ফোটাতে সক্ষম হয়েছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার।
০৫। তিন শতাধিক অজ্ঞাত মৃত বৃদ্ধ-বৃদ্ধাকে দাফন-কাফন ও সৎকার: মৃত্যুর চেয়ে পৃথিবীতে বড় কোনো সত্যি আর নেই। আর প্রতিটি মানুষই চায় মৃত্যুর সময় তার প্রিয়জন পাশে থাকবে। চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার রাস্তায় পড়ে থাকা ৩শতাধিক অসহায় মানুষকে পরম মমতায়, ভালোবাসায় আগলে রেখেছেন প্রিয়জনের মতো। এবং তাদের মৃতুর পর স্ব স্ব ধর্মীয় রীতি অনুসারে দাফন এবং সৎকারের ব্যবস্থা করেছে ।
০৬। রাস্তায় পড়ে থাকা ৩০জন বেওয়ারিশ মানুষের মৃতদেহ দাফন: রাজধানীতে বিভিন্নসময় রাস্তায় পড়ে থাকা ৩০জন মানুষের মৃতদেহের দাফন সম্পন্ন করেছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার।
০৭। দুস্থ মানুষের চিকিৎসায় সহযোগীতা: দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ঢাকায় চিকিৎসা জন্য এসে সর্বশান্ত হয়ে যাওয়া ১৩৫জন দুস্থ মানুষকে চিকিৎসা এবং নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে এই চ্যারিটি প্রতিষ্ঠান।
০৮। পথশিশু এবং দুস্থ মানুষদের খাদ্য সহায়তা: রাস্তায় বসবাস করা অসংখ্য পথশিশুসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রায় ৪০ হাজার অসহায় গরীব ক্ষুধার্ত মানুষকে খাদ্য এবং আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার।
০৯। পঙ্গু ও প্রতিবন্ধী শিশুদের সহায়তা: দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে চলাফেরায় অক্ষম, অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধীকে পথ চলতে সহায়তা করতে ১১০জন প্রতিবন্ধী ও শিশুকে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার হুইল চেয়ার দিয়ে সহায়তা করেছে।
১০। শীতকালীন বস্ত্র বিতরণ: তীব্র শীতে যখন দেশের উত্তরাঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার মানুষ অসহায় হয়ে পড়ে,ঠিক তখনই ভালোবাসা উষ্ণপরশ নিয়ে শীতার্থ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে চাইল্ড এন্ড এইজ কেয়ার। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে প্রায় ৩৫ হাজার মানুষকে শীতবস্ত্র প্রদান করেছে এই মানবিক প্রতিষ্ঠানটি।
১১। দুর্যোগকালীন ক্ষতিগ্রস্থ মানুষকে সহায়তা: দেশে সংঘটিত বিভিন্ন দুর্যোগকালীন এবং দুর্যোগ পরবর্তী ক্ষতিগ্রস্থ প্রায় ১৮ হাজার দুস্থ পরিবারকে খাদ্য এবং আর্থিকসহায়তা প্রদান করেছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার। যা এই ক্ষতিগ্রস্থ অসহায় মানুষগুলো পুনরায় স্বাভাবিক জীবন পেতে সহায়তা করেছে।
১২। করোনা মহামারীতে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষে পাশে: করোনার মহামরীর ছোবলে যখন পুরো পৃথিবী থমকে গেছে, কাজ হারিয়ে ক্ষুধার কষ্টে গরীব মানুষেরা ছটফট করেছে ঠিক তখনই খাদ্য সহায়তা নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার। এই সহায়তা অব্যহত রেখে সারা দেশে প্রায় ১৭০০ পরিবারে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার পৌঁছে দিয়েছে খাদ্য সহায়তা।
১৩। স্থানীয় গরীব অসহায় শিশুদের ইসলামী শিক্ষা গ্রহণের ব্যবস্থা: রাজধানীর কল্যাণপুরে স্থানীয় গরীব ও বস্তির ৭০জন শিশুকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পবিত্র কুরআন শিক্ষাসহ ইসলামী শিক্ষার সুব্যবস্থা করে দিয়েছে এই মানবিক দাতব্য প্রতিষ্ঠানটি।
১৪। পঙ্গু মানুকে কৃত্রিম অঙ্গ স্থাপনে সাহায্য: দেশের বিভিন্ন স্থানের ১৩ জন শারীরিক অঙ্গহীন ব্যক্তির কৃত্রিম অঙ্গ প্রতিস্থাপনে সহায়তা করেছে প্রতিষ্ঠানি। এখন তারা সেই কৃত্রিম অঙ্গদিয়ে অনেকটাই স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারছেন।
১৫। চিকিৎসা সহায়তা প্রদান: বিভিন্ন সময় ৪০জনের অধিক মানুষকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা করেছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার।
১৬। শতাধিক গরীব দুস্থ, অসহায় এবং এতিম শিশুদের শিক্ষার সুযোগ: দেশের বিভিন্ন প্রান্তে শতাধিক গরীব দুস্থ, অসহায় এবং এতিম শিশুদের শিক্ষাব্যবস্থা প্রদান করে তাদের মৌলিক অধিকার প্রদানে সহায়তা করেছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার।
১৭। তৃতীয় লিঙ্গ (হিজরা) সম্প্রদায়কে সহায়তা:হিজরা জনগোষ্ঠী সমাজের এক অবহেলিত নিপেড়িত জনগোষ্ঠীর নাম। এই জনগোষ্ঠীকে খাদ্য ও আর্থিক সহায়তা করে বারবার তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার। বিশেষ করে করোনা মহামারীতে তাদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রেখে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।
১৮। বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে আর্থিক অনুদান: দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণ যেমন মসজিদ, মাদ্রাসা, মন্দির এবং গির্জা নির্মাণে আর্থিক সহায়তা প্রদান করাসহয় বিভিন্ন সাহায্য সহযোগিতা করা হয়েছে।
১৯। অসহায়দের আবাসস্থলের জন্য জমি ক্রয়: ‘রাস্তায় থাকবে না আর কোনো অসহায় মানুষ’ এই প্রতিপাদ্যকে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার নিজস্ব প্রচেষ্টা এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের দান সহযোগীতার মাধ্যমে রাস্তায় পড়ে থাকা অসহায় মানুষের বাসস্থান প্রকল্পের জন্য ৪০ শতক জমি ক্রয় করতে সক্ষম হয়েছে ।
২০। জরুরী প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য এ্যাম্বুলেন্স এবং পিকাআপ ক্রয়: অসহায় মানুষের জরুরী সেবা প্রদানের লক্ষে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার ১টি এ্যাম্বুলেন্স এবং ১টি পিকআপ গাড়ি কিনতে সক্ষম হয়েছে। যা রাস্তায় পড়ে থাকা মানুষ সংগ্রহসহ বিভিন্ন জরুরী কাজে ব্যবহার করা হয়।
২১। অসহায় মানুষদের জন্য নিজস্ব জমিতে আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ: চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই একটি নিজস্ব আবাসনের স্বপ্ন দেখে আসছে। সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়নের রূপ দিতে এরই মধ্যে সাভারের কমলাপুরের ভাইটেক এলকায় নিজস্ব জমিতে আবাসন প্রকল্প নির্মাণ কাজ শুরু করে দিয়েছে। যা এখন অনেকাংশই দৃশ্যমান। এই নির্মাণাধীন প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করতে পারলে কমপক্ষে ৭০০ থেকে ১০০০ অসহায় মানুষকে বিনামূল্যে আশ্রয় প্রদান করতে পারবে এই মানবিক দাতব্য প্রতিষ্ঠানটি।
২২। অসহায় মৃত মানুষদের দাফনের জন্য কবরস্থানের ব্যবস্থা:চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ারে আশ্রয়প্রাপ্ত বেশিরভাগ মানুষই পরিচয়হীন, অজ্ঞাত এবং বেওয়ারশি হওয়ায় এখানে মৃত ব্যক্তিদের দাফনকার্য সম্পন্ন করায় প্রশাসনিক অনেক জটিলতার সম্মুখিন হতে হয়। তাই চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার নিজস্ব জমি ক্রয় করে কবরস্থানের ব্যবস্থা করেছে। ফলে এখন আর দাফন বা সৎকার নিয়ে কোনো ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে না।
২৩। শতাধিক শিক্ষিত ও বেকারদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা: দেশের সার্বিক অবস্থা বিবেচনায় প্রতিনিয়ত বাড়ছে শিক্ষিত বেকারদের সংখ্যা। যা একটি দেশে অর্থনৈতিক ব্যবস্থার জন্য হুমকি। এহেন অবস্থায় চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে শত শত বেকারদের মুখে হাসি ফুটিয়েছে। ফলে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা আরও বেগবান হচ্ছে।
২৪। পরিচয়হীন অবুঝ প্রতিবন্ধী শিশুদের আশ্রয় কেন্দ্র: বর্তমানে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার প্রতিষ্ঠনটি বিভিন্ন রাস্তা, ডোবা-নালা, ডাস্টবিনসহ বিভিন্ন জায়গা থেকে কুড়িয়ে পাওয়া ২৪জন প্রতিবন্ধী শিশুদের আশ্রয় প্রদান করার সাথে সাথে তাদেরকে সুস্থ স্বাভাবিক করার লক্ষ্যে সুচিকৎস ও পুষ্টিকর খাবারসহ সকল মৌলিক প্রয়োজনীয়তা পূরণের দায়িত্ব নিয়েছে। যা দেশের ইতিহাসে সত্যিই বিরল।

সার্বিকভাবে দেশের সর্ব সাধারণের কাছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার প্রতিষ্ঠানটি মানুষের নিকট একটি সাফল্যগাথা প্রতিষ্ঠান হিসেবে সুপরিচিত হতে সক্ষম হয়েছে। সারা দেশের মানুষের কাছে চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার প্রতিষ্ঠানটি একটি আস্থা, ভালোবাসা এবং নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। Milton Samadder

For Emergency Call

+88 02 58050680, +8801622 220222, +8801633 330333

Creating Document, Do not close this window...