Page View: 2,946,002 | Online: 3
child.oldagecare@gmail.com +8801622 220222 +8801633 330333

মহান আল্লাহর নিমিত্তে গরীব মিসকিনদের জন্য দান করাকে সদকা বলা হয়


Posted: 07 Mar 2022 | Published: Mar 2022

ইমাম জুরজানী বলেন, "এমন দানকে সদকা বলে যার মাধ্যমে আল্লাহর নিকট সওয়াব আশা করা হয়।" ইবনে মানজুর বলেছেন, "মহান আল্লাহর নিমিত্তে গরীব মিসকিনদের জন্য দান করাকে সদকা বলা হয়।"

সদকাহ দুই প্রকার।
০১। সদকাতুল আম। সাধারণ সাদকা।
০২। সদকাতুল জারিয়া। প্রবাহমান সদকাহ (যে সদকার কার্যকারিতা সর্বদা থাকে, যা কখনও শেষ হয়না )



★ ভালো কাজে টাকা পয়সার ব্যবহার করা সাধারণ সাদকাহ।

★ সদকাতুল জারিয়া হলো এমন কাজ যা মানুষের উপকারে আসে। যেমন উন্নয়ন মুলক কাজ, রাস্তা নির্মাণ, মসজিদ-মাদ্রাসা নির্মাণ, অসহায় মানুষের জন্য ঘর নির্মাণ ও তাদের থাকার ব্যাবস্থা করা, ইয়াতিম ছেলে-মেয়েকে লালন-পালন করা ও তাদের উত্তম নৈতিকতা শিক্ষা দেওয়া, গাছ লাগানো, পুকুর খনন করা ইত্যাদি।

কেন সদকা করব?
#দান-সদকার দ্বারা সম্পদ পবিত্র হয়।
কায়িস ইবনে আবু গারাজাহ (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসুল (সা.)-এর যুগে আমাদের (ব্যবসায়ীদের) সামাসিরাহ (দালাল সম্প্রদায়) বলা হতো। একদা রাসুল (সা.) আমাদের কাছ দিয়ে যাওয়ার সময় আমাদের এই নামের চেয়ে অধিক সুন্দর নাম দিলেন। তিনি বলেন, ‘হে ব্যবসায়ী সম্প্রদায়! ব্যাবসায়িক কাজে বেহুদা কথাবার্তা এবং অপ্রয়োজনীয় শপথ হয়ে থাকে। সুতরাং তোমরা ব্যবসার পাশাপাশি সদকা করে তাকে ত্রুটিমুক্ত করো।’ (আবু দাউদ, হাদিস : ৩৩২৬)

#দান-সদকায় বিপদাপদ দূর হয়
আনাস (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেন, ‘তোমরা অধিক হারে সদকা করো। কেননা বালা-মুসিবত সদকাকে অতিক্রম করতে পারে না।’(বায়হাকি, হাদিস : ৮০৮৩)

#ফেরেশতাদের দোয়াপ্রাপ্তি
দান-সদকাকারীর জন্য প্রতিদিন ফেরেশতারা বরকতের দোয়া করে থাকেন। আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেছেন, প্রত্যেক বান্দা যখন সকালে ওঠে, দুজন ফেরেশতা অবতীর্ণ হন। তাঁদের একজন বলেন, হে আল্লাহ! খরচকারীর ধন আরো বাড়িয়ে দিন এবং দ্বিতীয়জন বলেন, হে আল্লাহ! কৃপণকে ধ্বংস করে দিন। (মুসলিম, হাদিস : ২২২৬)

#সদকাতুল জারিয়া কেন করব?
আবু হুরায়াহ (রাঃ) বর্ণিত হাদিসে এসেছে, রাসুল পাক (সাঃ) বলেন: ‘যখন কোন ব্যক্তি মৃত্যুবরণ করে তখন শুধু মাত্র তিনটি আমল ব্যতিত তাঁর সকল আমল বন্ধ হয়ে যায়। আর তা হলো: সদকায়ে জারিয়া, উপকারী জ্ঞান অথবা সৎকর্মশীল পুত্র যে তার জন্য দুয়া করে’। (সহিহ মুসলিম শরীফ, হাদিস নং-১৬৩১)
ইমাম আন-নববী (রঃ) এই হাদিস খানার উপর মন্তব্য করতে যেয়ে বলেছেন: ‘ছাদকায়ে জারিয়া হল ওয়াকফ’। (শরহে মুসলিম -১১/৮৫)।

কোন ব্যক্তির মাধ্যমে উপরোক্ত কাজ হওয়া মানে উক্ত ব্যক্তি কিয়ামত পর্যন্ত সওয়াবের রাস্তা খুলে দিলো। এটা কেবলই ভাগ্যবান ব্যক্তিদের নসীবেই জুটবে এটাই স্বাভাবিক। পয়সা থাকলেই, সুযোগ থাকলেই সকলের জন্য এত বড় নিয়ামত অর্জনের তৌফিক হয় না।

#কম বেশী সবারই সদকাতুল জারিয়া করা উচিৎ
পৃথিবীতে কেউই চিরস্থায়ী নয়, আমরা ক্ষনিকের মুসাফির মাত্র। কখন কিভাবে যে আমাদের মৃত্যু এসে যাবে নিজেরাও জানিনা। এক সেকেন্ডের ও ভরসা নাই।

কেন মহান আল্লাহ রাব্বুল আল আমিন আমাদের সৃষ্টি করেছেন? আর আমরা কি করলাম তার জন্য..? একটু ভাবুন..!!
আজ আমাদের আমল রিয়া যুক্ত, নিজেদের আমল থেকে গুনাহের পাল্লা অনেকটাই ভাড়ি, এমতাবস্থায় আমাদের দুনিয়ার পাশাপাশি আখিরাত কে প্রাধান্য দেওয়া উচিৎ।

আল্লাহর নিয়ামতের দিকে তাকান আর নিজের আমলের দিকে একটু লক্ষ্য করুন। আজ যদি আমার মৃত্যু হয়ে যায়, কি নিয়ে যাবো আল্লাহর দরবারে?

হটাৎ যদি মৃত্যু এসে যায়, অন্তত কবরে থেকেও যেন আমার কোন কাজের সওয়াব আমি পেতে পারি, সে ব্যবস্থা সকলেরই করা উচিৎ।

হযরত মাওলানা ফয়সাল আহমেদ
শিক্ষক, চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার।

বিশ্বায়নের এই যুগে দ্রুত বড় বড় স্থাপনা তৈরি হলেও ভেঙ্গে যাচ্ছে পারিবারিক বন্ধন, মানুষে মানুষে সৌহার্দ্য, সুসম্পর্ক কিংবা আত্মীয়তার দৃঢ়তা। ফলে পরিবার থেকে প্রায়ই বিতাড়িত হচ্ছে বৃদ্ধ ও অসহায় বাবা-মায়েরা। নিজের সন্তানরাই রাস্তায় ফেলে যাচ্ছে বাবা-মাকে। নিদারুন কষ্টে রাস্তায় দিনাতিপাত করছে লক্ষ লক্ষ বৃদ্ধ বাবা-মা। এই রাস্তায় পড়ে থাকা অসহায় বাবা-মাদের রাস্তা থেকে কুড়িয়ে পরম মমতায় যে লালন পালন এবং দায়িত্ব নেয় সে হলো মিলটন সমাদ্দার। দীর্ঘ আট বছর ধরে তিনি রাস্তা থেকে পাঁচ শতাধিকেরও বেশি জান্নাতের টুকরোকে আশ্রয় দিয়েছেন চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ারের মাধ্যমে।
চলছে শবে বরাতের মাস। এই মহান পবিত্র মাসের উছিলায় হতে পারে আপনার আমার তাকদিরের পরিবর্তন। কখনও কি চিন্তা করেছেন বৃদ্ধাশ্রমের আশ্রীত বাবা-মায়েদের তকদিরের জন্য। কিভাবে কাটছে তাদের দিন রাত।
আপনার সামন্য দান-সদকা আর ভালোবাসা এই সকল অভিভাবহীন বৃদ্ধ বাবা-মা এবং প্রতিবন্ধী বাচ্চাদের জন্য হতে পারে এতটুকু ভালো থাকার কারণ। আপনাদের দানের টাকায়ই নির্মিত হচ্ছে দেশের সর্ববৃহত অসহায়দের আশ্রয়কেন্দ্র। এই দান সদকাহ আপনার জন্য সদকাতুল জারিয়া হিসেবে কিয়ামত পর্যন্ত সওয়াব অর্জনের উপায় হবে।
সুতরাং আপনার যাকাত-ফিতরা, সদকা এবং দান-সহযোগিতা করুন চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ারের পাঁচশতাধিক অভিভাবকহীন অসুস্থ প্রতিবন্ধী শিশু ও বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের। আসুন আমরা সকলে মিলে আমাদের সাধ্যমত স্বেচ্ছা দানের মাধ্যমে অসহায় মানুষের দায়িত্বগ্রহণ করি।

√√ বিস্তারিত জানতে- Milton Samadder
+88 01622220222
+88 01633330333
------------------------------------
√√ সরাসরি বৃদ্ধাশ্রম ভিজিট করুন-
বৃদ্ধাশ্রম -হাউস#৪৬২, রোড#০৮ দক্ষিণ পাইকপাড়া, কল্যাণপুর, মিরপুর, ঢাকা ১২১৬।
------------------------------------
√√ নগদ সহযোগিতা পাঠাতে- Child & Old Age Care.
Bkash- 01622220222 Merchant
Bkash- 01633330333 Merchant
Nagad-01622220222 Merchant
------------------------------------
Bkash- 01626555222 Personal
Bkash- 01615554444 Personal
------------------------------------
Nagad- 01626555222 Personal
Nagad- 01615554444 Personal
-------------------------------------
Rocket- 016155544446 Personal
Rocket- 016265552223 Personal
-------------------------------------
√√ ব্যাংক একাউন্ট বিস্তারিত তথ্য- Child & Old Age Care.
A/C No: 15011200000044. (Premier Bank) Shamoly Branch.
-----------------------------------------------------------------
Child & Old Age Care Foundation.
A/C No: 4022788616324 (AB Bank) Begum Rokeya Sharani Branch.
-----------------------------------------------------------------

For Emergency Call

+88 02 58050680, +8801622 220222, +8801633 330333

Creating Document, Do not close this window...